1. admin@dipanchalnews.com : dipanchalAd :
মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০১:৫৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হলে আমি মারা যাব : প্রধানমন্ত্রী দেশের স্বার্থ কোথায়? বরগুনায় অগ্নিকাণ্ডে এক গৃহস্থের বসতঘর পুড়ে ভস্মীভূত বরগুনায় হরিণের ২টি মাথাসহ অঙ্গপ্রত্যঙ্গ উদ্ধার করল কোস্টগার্ড বরগুনা হাসপাতালের হলরুমের সিলিং ডেকারেশন ধ্বসে ক্ষয়-ক্ষতির পরিমাণ প্রায় অর্ধকোটি টাকা আজ শেষ হচ্ছে ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচন তালতলীতে ভোটগ্রহণ শুরু,নারী ভোটারের দীর্ঘ লাইন বরগুনায় উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির কৌশল বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন বরগুনায় চাকুরীর প্রলোভন দেখিয়ে ৫ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিলেন মৌলভী কাওসার মাহমুদ (সুজন) ষষ্ঠ উপজেলা নির্বাচন: বামনায় মনোনয়ন পত্র দাখিল করলেন-১৩ জন

দেশের স্বার্থ কোথায়?

  • Update Time : বুধবার, ২৬ জুন, ২০২৪
  • ৫৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকাই সিনেমা ‘ঘাটের মাঝি’তে এন্ড্রু কিশোর ও সাবিনা ইয়াসমিনের দ্বৈতকণ্ঠে গাওয়া ‘মন দিলাম প্রাণ দিলাম; আর কি আছে বাকি! ও আমার কাজল পাখি পরাণ পাখি; ও আমার সুজন মাঝি, ও আমার ঘাটের মাঝি’ গানের কথা মনে আছে? বাংলাদেশের ওপর দিয়ে ভারতকে রেল করিডোর দেয়ার খবরের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেটিজেনরা এ গানটি ব্যাপক শেয়ার, লাইক দিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি একটি চিঠি লিখেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। সেই চিঠি নিয়ে দেশের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে হৈচৈ পড়ে গেছে। রহস্য কি? রহস্য আর কিছুই নয় মমতা ব্যানার্জি জানিয়ে দিয়েছেন গঙ্গা (৩০ বছরের ফারাক্কা চুক্তি নামে পরিচিত) ও তিস্তা নদীর পানি বণ্টনে নিয়ে তিনি আপস করবেন না।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের সময় দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে গঙ্গা ও তিস্তা নদীর পানি বণ্টন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ খবর প্রকাশের পর মমতা এই চিঠি লেখেন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তার দেশের প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়ে দেন তিনি রাজ্যের ক্ষতি হয় এমন চুক্তি করতে দেবেন না। অথচ দিল্লি সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই করেছেন। গত ২৫ জুন গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতকে রেল করিডোর দেয়াসহ নতুন ১০ চুক্তি ও স্মারক সইয়ের পক্ষ্যে সাফাই গেয়েছেন। প্রশ্ন হলো গত ১৫ বছরে বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিবেশী ভারতের চুক্তির সংখ্যা কত? দুই দেশের মধ্যে এই চুক্তি ও সমঝোতা স্মারকের সঠিক পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হয়নি। তবে ২০১৮ সালের ভারত সফরে ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই করে দেশে ফিরে ৩০ মে গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করে দিল্লি সফরের সাফল্য তুলে ধরেন শেখ হাসিনা।

ওই সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ভারতকে যা দিয়েছে, দেশটিকে তা সারা জীবন মনে রাখতে হবে। প্রতিদিনের বোমাবাজি, গুলি থেকে আমরা তাদের শান্তি ফিরিয়ে দিয়েছি। এটা তাদের মনে রাখতে হবে।’ এক সাংবাদিক প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চান, ‘ভারতের কাছে আপনি কোন প্রতিদান চেয়েছেন কিনা? চাইলে কোনও আশ্বাস পেয়েছেন কিনা।’ জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমি কোনও প্রতিদান চাই না। প্রতিদানের কী আছে? আর কারও কাছে পাওয়ার অভ্যাস আমার কম। দেয়ার অভ্যাস বেশি।’ ভারতকে সবকিছু উজার করে দেয়া হচ্ছে। তিস্তা চুক্তি দীর্ঘদিন থেকে ঝুলে রয়েছে। অথচ ফেনি নদীর পানি চুক্তি করে ত্রিপুরায় ফেনি নদীর পানি উঠিয়ে দেয়া হচ্ছে। তিস্তা চুক্তি দীর্ঘদিন থেকে ঝুলে রয়েছে। তিস্তÍা নদীর পানি ব্যবহারে চীন মহাপ্রকল্প করার প্রস্তাব দিলেও ভারত সেখানে বাগড়া দিচ্ছে। ফারাক্কা চুক্তির মেয়াদ ২০২৬ সালে শেষ হয়ে যাবে। এমনিকেই চুক্তি মোতাবেক ভারত কখনো পানি দেয়নি। ফারাক্কা চুক্তি নবায়নেরও বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে মমতা ব্যানার্জি। ফলে ফারাক্কা চুক্তি নবায়ন না হলে দেশের আরো ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। অথচ ভারত যা চাইছে সঙ্গে সঙ্গে তা দিয়ে দেয়া হচ্ছে। জানতে চাইলে পানি সম্পদ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিশেষজ্ঞ ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আইনুন নিশাত বলেন, ফারাক্কা ব্যারেজসহ অন্যান্য বাঁধ বা ব্যারেজ চালুর মাধ্যমে ভারত পানি সম্পদকে মরণাস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। ফারাক্কা ব্যারেজের মাধ্যমে বাংলাদেশের উত্তর, দক্ষিণ—পশ্চিমাঞ্চলের ৬ কোটিরও বেশি মানুষকে ধুঁকে ধুঁকে মারছে। বর্ষা মওসুমে ফারাক্কা ব্যারেজ খুলে দিয়ে বাংলাদেশকে ভাসিয়ে দেয়। আর শুষ্ক মৌসুমে পানি আটকে দিয়ে পানিশূন্য করে এদেশকে মরুভূমিতে পরিণত করে। ফারাক্কা ব্যারেজের কারণেই দেশের উত্তর, দক্ষিণ—পশ্চিমাঞ্চলের সকল নদী মৃত্যুর মুখে। গোটা বরেন্দ্র অঞ্চল মরুভূমিতে পরিণত হয়েছে। ভারতের সাথে পানির এ সমস্যা বললেই সমাধান করা সম্ভব নয়। এটা সমাধান করতে হলে রাজনৈতিকভাবে করতে হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2024 The Daily Dipanchal
Customized By BlogTheme